বর্ণ সাহিত্য পত্রে আপনাকে স্বাগতম। সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতির কাগজ বর্ণ। আপনার নির্বাচিত লেখা আজই পাঠিয়ে দিন আমাদের ই মেইল এ -Lnrayhan@yahoo.com ।
  • November 11, 2023

তাঁর পিতৃ প্রদত্ত নাম প্রবোধ কুমার বন্দ্যোপাধ্যায়। ডাক নাম মানিক। ফ্রয়েডীয় তত্ত¡ তথা মনোবিকলন তত্তে¡-উজ্জীবিত হয়ে মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় (১৯০৮-১৯৫৬) সাহিত্য রচনা করেছেন। তাঁকে বলা হয় ‘কলম-পেষা-মজুর’। জীবনের প্রথমভাগে তিনি ফ্রয়েডীয় সাহিত্যিক আর শেষভাগে মার্ক্সিস্ট লেখক। 

তাঁর প্রথম গল্পের নাম অতসী মামী, প্রথম উপন্যাস ‘জননী’ (১৯৩৫)। তাঁর রচিত উপন্যাসগুলো হলো: জননী, দিবারাত্রির কাব্য, পুতুল নাচের ইতিকথা (চরিত্র: শশী, কুসুম, মতি, কুমুদ), শহরবাসের ইতিকথা, ইতিকথার পরের কথা, অহিংসা, পদ্মানদীর মাঝি (চরিত্র: কুবের, কপিলা, হোসেন মিয়া), শহরতলী, সোনার চেয়ে দামী, স্বাধীনতার স্বাদ, আরোগ্য ইত্যাদি। 

‘পদ্মা নদীর মাঝি’ উপন্যাসটি বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত হয়েছিল। এ উপন্যাসের উপজীব্য জেলে জীবনের বিচিত্র সুখ-দুঃখ। 

তাঁর রচিত গল্পগ্রন্থগুলো হলো: অতসী মামী ও অন্যান্য গল্প, প্রাগৈতিহাসিক (চরিত্র: ভিখু, পাঁচি), মিহি ও মোটা কাহিনী, সরীসৃপ, সমুদ্রের স্বাদ ইত্যাদি।

ছোটগল্প: অতসী মামী ও অন্যান্য গল্প (১৯৩৫), প্রাগৈতিহাসিক (১৯৩৭), সরীসৃপ, আজকাল পরশু’র গল্প। 

বিখ্যাত গল্প : প্রাগৈতিহাসিক, চরিত্র : ভিখু, পাঁচী। 

প্রথম প্রকাশিত গল্পগ্রন্থ : অতসী মামী ও অন্যান্য গল্প (১৯৩৫)